Home News মহাকাশে গেল ফক্সকনের স্যাটেলাইট

মহাকাশে গেল ফক্সকনের স্যাটেলাইট

গত শনিবার ক্যালিফোর্নিয়ার ভ্যান্ডেনবার্গ স্পেস ফোর্স বেইস থেকে স্পেসএক্সের ফ্যালকন ৯ রকেট স্যাটেলাইট দুটি নিয়ে মহাকাশের পথে যাত্রা করে। 

by Newsroom
মহাকাশে গেল ফক্সকনের স্যাটেলাইট

স্পেসটেটর ডেস্ক।।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় আইফোন উৎপাদনকারী তাইওয়ানিজ কম্পানি ফক্সকন এবার প্রটোটাইপ (নমুনা) স্যাটেলাইট তৈরি করেছে। স্পেসএক্সের রকেটে করে পৃথিবীর নিম্ন কক্ষপথে এগুলো পাঠানো হয়েছে। প্রতিটি স্যাটেলাইটের ওজন ৯ কেজি। গত শনিবার ক্যালিফোর্নিয়ার ভ্যান্ডেনবার্গ স্পেস ফোর্স বেইস থেকে স্পেসএক্সের ফ্যালকন ৯ রকেট স্যাটেলাইট দুটি নিয়ে মহাকাশের পথে যাত্রা করে।

বিশেষজ্ঞমহলের মতে, তাইওয়ানের সংস্থা ফক্সকনের দুই মূল ব্যবসা স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ নির্মাণে কিছুটা মন্দা এসেছে। যে কারণে, সংস্থাটি নতুন ব্যবসা ক্ষেত্রে প্রবেশ করতে চাইছে। তারই অঙ্গ হিসেবে মহাকাশ থেকে কমিউনিকেশনস ক্ষেত্রে যে চাহিদা বাড়ছে, তার পূর্ণ সুযোগ নিতে স্যাটেলাইট প্রযুক্তিতে প্রবেশ করার পরিকল্পনা করেছে ফক্সকন।

ইলন মাস্কের স্পেস এক্সপ্লোরেশন টেকনোলজ়িস কর্প ইতিমধ্যেই তাদের স্টারলিঙ্ক কনস্টেলেশনের জন্য ৫ হাজারের বেশি এলইও স্যাটেলাইট মহাকাশে প্রতিস্থাপিত করেছে। ফক্সকন যে দুটি স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠিয়েছে, সেগুলি তাইওয়ানের ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে তৈরি করা হয়েছে। ব্যাকপ্যাকের মাপের স্যাটেলাইটের ওজন 9 কিলোগ্রাম।

তাতে রয়েছে বিভিন্ন ক্যামেরা, কমিউনিকেশন ডিভাইসেস ও অন্যান্য সরঞ্জাম। পৃথিবী থেকে 529 কিলোমিটার উচ্চতায় প্রতি 96 মিনিটে তারা বিশ্বকে প্রদক্ষিণ করতে সক্ষম। গত চার বছর ধরে ফক্সকন চেয়ারম্যান ইয়ং লিউ ইলেকট্রিক ভেহিক্যাল, ডিজিটাল হেল্থ ও রোবোটিক্সের মতো ক্ষেত্রে জোর দেওয়ার পাশাপাশি আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, সেমিকন্ডাক্টর ও কমিউনিকেশনস স্যাটেলাইট প্রযুক্তিতে ব্যবসার সম্প্রসারণ করেছেন।

 

আরও পড়ুন: অন্য চেহারায় বলয়হীন শনি

Related News