Home News মহাকাশে লুটপাট! অপরাধী আমাদের মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি!

মহাকাশে লুটপাট! অপরাধী আমাদের মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি!

ছায়াপথ দ্বারা ক্রেটার ঝাঁকের লুট হওয়ার কথা নিশ্চিত করলেও ছায়াপথের ঠিক কোন নক্ষত্রগুলো ক্রেটারের ঝাঁকের সদ্যস্য ছিল তা বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি

by Newsroom
মহাকাশে লুটপাট! অপরাধী আমাদের মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি!

স্পেসটেটর ডেস্ক।।

ডাকাতি, লুটপাট শুধু মানুষই করে না,জীবজগতের অন্যপ্রাণীদের ভেতরেও এ প্রবণতা দেখা যায়। কিন্তু খোদ মহাকাশেও এ ঘটনটা ঘটে! তাহলে কি এলিয়েনরা এই লুটপাট চালাচ্ছে। আসলে তা নয়। লুটপাট করে স্বয়ং আমাদের ছায়াপথ। অন্য গ্যালাক্সি থেকে ঝাঁক ঝাঁক তারা সে লোপাট করে নিজের বুকে তুলে নেয়। ২০১২ সালে হাবল টেলিস্কোপে এমন কিছু ছবি ধরা পড়ে। সেগুলো থেকে বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত  করেন ছায়াপথের অনেক তারাই তার নিজের নয়। অন্য গ্যালাক্সি থেকে সে ঝাঁক ঝাঁক তারা চুরি করেছে।

সব গ্যালাক্সিতেই তারাদের কিছু ঝাঁক থাকে। তারার ঝাঁককে বলে স্টার ক্ল্যাস্টার।  প্রতিটা স্টার ক্ল্যাস্টারে লাখ লাখ তারা থাকে। আমাদের থেকে ১ লাখ ৯৯ হাজার আলোকবর্ষ দূরে একটা গ্যালাক্সি আছে।নাম স্মল ম্যাগেলানিক ক্লাউড। এই গ্যালাক্সির একেবারে শেষ প্রান্তে ক্রেটার নামে একটা স্টার ক্ল্যাস্টার ছিল। ক্রেটার হলো তারাদের গোলাকার ঝাঁক। সাধারণত গোলাকার ক্ল্যাস্টারগুলো ছায়াপথের মাঝামাঝি জায়গায় অবস্থান করে। কিন্তু ক্রেটার ছিল স্মল ম্যাগেলানিক ক্লাউড-এর একেবারে প্রান্তের দিকে।

তাই ওই তারার ঝাঁকের ওপর গ্যালাক্সিটির মহাকর্ষীয় আকর্ষণ বল ছিল অত্যন্ত দুর্বল। আমাদের মিল্কিওয়ে বা ছায়াপথ সেই সুযোগটিই কাজে লাগিয়েছে। ছায়পথের শক্তিশালী মহাকর্ষীয় বল অত্যন্ত জোরালোভাবে ক্রিয়া করে ক্রেটার ঝাঁকের ওপর। তাই খুব সহজেই ক্রেটার তারা নিজের গ্যালাক্সির আকর্ষণ কাটিয়ে ছায়াপথের দিকে ধীরে ধীরে এগুতে থাকে।  ছায়াপথ থেকে ক্রেটার ঝাঁকের দূরত্ব যত কমে, মহকর্ষীয় আকর্ষণ বল ততো বাড়তে থাকে। এরফলে একসময় তারার ঝাঁকটি স্মল ম্যাগেলানিক ক্লাউডের আকর্ষণ বল পুরোপুরি কাটিয়ে ওঠে এবং দ্রুত ছায়াপথের দিকে এগিয়ে আসে। ফলে ছায়াপথ আরও শক্তিশালী মহাকর্ষ বলে ক্রেটারকে আকর্ষণ করে। একসময় ক্রেটার ঝাঁক ঢুকে পড়ে ছায়াপথের অন্য সদস্যদের ভেতরে। এখন তারার সেই ঝাঁকগুলোই ছায়াপথ গ্যালাক্সির স্থায়ী বাসিন্দা। ছায়াপথ দ্বারা ক্রেটার ঝাঁকের লুট হওয়ার কথা নিশ্চিত করলেও ছায়াপথের ঠিক কোন নক্ষত্রগুলো ক্রেটারের ঝাঁকের সদ্যস্য ছিল তা বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি।

 

আরও পড়ুন: মহাকাশে ইঁদুরের ভ্রুণ পরীক্ষায় সাফল্য

Related News