Home Feature সৌদি আরবের মহাকাশ প্রোগ্রাম কতদূর এগোলো

সৌদি আরবের মহাকাশ প্রোগ্রাম কতদূর এগোলো

লিখেছেন মোত্তাকিন মুন

by Newsroom
সৌদি আরবের মহাকাশ প্রোগ্রাম কতদূর এগোলো

আজ ২৩ সেপ্টেম্বর সৌদি আরবের জাতীয় দিবস। দিবসটি মূলত সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠা দিবস। ১৯৩২ সালের এই দিনে বাদশাহ আবদুল আজিজ অধীকৃত গোটা অঞ্চল নিয়ে তাঁর সউদ গোষ্ঠীর নামকরণে সউদের আরব তথা সৌদি আরব নাম রাখেন। পাশাপাশি তিনি রাজতন্ত্র ঘোষণা করেন। 

পবিত্র মক্কা ও পবিত্র মদিনার কারণে বাংলাদেশসহ মুসলিম বিশ্ব সৌদি আরবকে সম্মানের চোখে দেখে থাকে। এ বছর সৌদির স্বাধীনতা দিবসের স্লোগান হলো ‘আমরা স্বপ্ন দেখি এবং অর্জন করি’। এরই প্রেক্ষিতে আজ সৌদি আরবের স্বাধীনতা দিবসে সৌদি আরবের স্পেস প্রোগ্রাম নিয়ে আলোচনা করবো। যে প্রোগ্রামটি তারা বিশেষ পরিকল্পনা দিয়ে সাজিয়েছে। 

জানি সৌদি আরবের স্পেস প্রোগ্রামের কথা শুনেই অনেকে চোখ কপালে উঠে গেছে। কিন্তু ২০০১৬ সালের পর থেকে সৌদি আরবের ‘আরব স্পেস মিশন’ ও ‘সৌদি স্পেস কমিশন’ প্রোগ্রাম দ্রুত গতিতে তাদের প্রত্যেকটা মিশন সম্পন্ন করে যাচ্ছে।  

২০১৬ সালে ২.২ বিলিয়ন ডলার বাজেটে সৌদি আরব তাদের স্পেস মিশন শুরু করেছিলো। যা ২০২২ সালে এই বাজেটের পরিমাণ বেড়ে হয় ৪.২ বিলিয়ন ডলার। যার ভেতরে সৌদির নিজস্ব স্যাটেলাইট তৈরি থেকে শুরু করে, চাঁদে নিজেদের নভোচারীদের নিয়ে যাওয়া এবং নিজস্ব স্পেস টেকনোলজিকে উন্নত করাই প্রধান লক্ষ্য।  

মহাকাশে যাচ্ছেন প্রথম সৌদি নারী নভোচারী রায়ানাহ বার্নাবি

২০১৯ সালে সৌদি আরব তাদের নিজস্ব টেকনোলজি, বিজ্ঞানী এবং কর্মীদের মাধ্যমে নিজেদের প্রথম স্যাটেলাইট তৈরি করে। যা ‘সৌদিসেট-ফাইভ এ’ নামে পরিচিত। সামনের কয়েক বছরে তারা স্বল্প ও অতি দূরত্বের স্যাটেলাইট তৈরির দিকেও বিশেষ মনোযোগ দিয়েছেন। এবং রয়টার্স সংবাদ সংস্থার সূত্রে জানা যায় এই বছরই আরো একটি কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট স্পেসে পাঠানোর পরিকল্পনাও করেছে সৌদি আরব।  

এছাড়াও এই বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি সৌদি প্রেস এজেন্সি জানায়, ২০২৩ সালের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের (আইএসএস) মিশনে সৌদি পুরুষ নভোচারী আলি আল-কারনির সঙ্গে যোগ দিয়েছেন নারী নভোচারী রায়ানাহ বার্নাবি।

এই ২ নভোচারী ‘এএক্স-২ স্পেস মিশনে’ ক্রু হিসেবে যোগ দেবেন এবং তাদের মহাকাশ ফ্লাইটটি যুক্তরাষ্ট্র থেকে উৎক্ষেপণ করা হবে।

এর আগে, প্রথম আরব দেশ হিসেবে ২০১৯ সালে নিজেদের এক নাগরিককে মহাকাশে পাঠিয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাত।  

বলাই বাহুল্য পশ্চিমা দেশ, ভারত,চীন,আমেরিকা,জাপানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সৌদি আরবও দ্রুতই মহাকাশে তাদের শক্তির বিস্তারে এগিয়ে যাচ্ছে। 

আরও পড়ুনঃ চন্দ্রযান-৩ এর ল্যান্ডার বিক্রম ও রোভার প্রজ্ঞানের কোনো সংকেত পাচ্ছে না ইসরো

Related News